নবীগণের পেশা:এক নজরে দেখে নিই কোন নবী কি কাজ করতেন

প্রতিফলক ডেস্ক:মানুষকে সঠিক পথে পরিচালিত করার জন্য যুগে যুগে বিভিন্ন জনপদে এসেছেন অসংখ্য নবী ও রসূল বা সৃষ্টিকর্তার প্রতিনিধি । যাদের সংখ্যাটা প্রায় ১ লক্ষ ২৪ হাজার মতান্তরে ২ লক্ষ ২৪ হাজার। পৃথিবীর প্রথম নবী হযরত আদম (আলাইহিস সালাম) থেকে শুরু করে শেষ নবী হযরত মুহাম্মদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহিস সালাম ) পর্যন্ত সকলের পরিচয় জানা না গেলেও পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কুরআন, বাইবেল, তাওরাত ও জবুরে বেশ কয়েকজন বিশিষ্ট নবীর বর্ণনা পাওয়া যায়।

নবীগণ পৃথিবীতে শুধুমাত্র ধর্ম প্রচার বা আদেশ-নিষেধের বাণী প্রচার করেন নি। পাশাপাশি জীবনধারণের জন্য বিভিন্ন পেশায় সংযুক্তির প্রমাণ পাওয়া যায় বিভিন্ন বর্ণনায়। আসুন জেনে নেওয়া যাক তাঁদের কয়েকজনের পেশা-

পৃথিবীর প্রথম মানব তথা নবী হযরত আদম (আলাইহিস সালাম) কৃষি কাজ করতেন অর্থাৎ কৃষক ছিলেন। ইদ্রিস (আলাইহিস সালাম) ছিলেন দর্জি, তিনি পোশাক সেলাই করতেন। পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি বছর বেঁচে থাকা নবী নূহ (আলাই সালাম) ছিলেন কাঠমিস্ত্রি, তিনি জাহাজ তৈরি করেছিলেন বলে জানা যায়। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য নূহ (আলাইহিস সালাম) কে বলা হয় দ্বিতীয় আদম ।

আব্রাহাম বা ইব্রাহিম (আলাইহিস সালাম) ছিলেন রাজমিস্ত্রি, তিনি কাবা ঘর বানিয়ে ছিলেন ।নবী ইলিয়াস (আলাইহিস সালাম) ছিলেন তাঁতী, তিনি সুতো কাপড় বুনতেন। দাউদ (আলাইহিস সালাম) ছিলেন কামার তিনি লৌহবর্ম বানাতেন। নবী মুসা (আলাইহিস সালাম) ছিলেন রাখাল তিনি মেষ চরাতেন বলে একটি বর্ণনায় জানা যায়।

নবী ঈসা (আলাইহিস সালাম) ছিলেন ডাক্তার। মানুষের দুরারোগ্য ব্যাধির চিকিৎসা করতেন। নবী ঈসা আলাইহিস সালাম খ্রিস্ট ধর্মের অনুসারী দের কাছে যীশুখ্রীষ্ট নামে পরিচিত। শেষ নবী তথা বিশ্ব মানবতার মুক্তি সূর্য হযরত মোহাম্মদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহিস সালাম) কখনো ছিলেন রাখাল।কিছু সময়ের জন্য তিনি ব্যবসায়িক কাজেও যুক্ত ছিলেন। শেষে তিনি ছিলেন রাষ্ট্র প্রধান।

WhatsApp chat
error: