সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সুশান্তের মৃতদেহের ছবি ডিলিট করার নির্দেশ মহারাষ্ট্র পুলিশের, না হলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি

প্রতিফলক ডেস্কঃ গতকাল আবারও এক বলিউড তারকার ছন্দ পতন হলো। আত্মহত্যা করলেন পিকের স্বনাম ধন্য অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত। রবিবার তাঁর নিজের বাড়ি থেকেই উদ্ধার হয় ঝুলন্ত দেহ। মৃত্যুর কারন বোঝা যায়নি অনুমান করা হচ্ছে মানষিক অবসাদ থেকেই এই আত্মহত্যা। প্রথমে সত্যটা কেউই মেনে নিতে পারেনি পরে সত্যটা মেনে নিতে হয় মানুষ।কাই পো চে থেকে ছিঁছোড়ে, এমএস ধোনির বায়োপিক থেকে ড্রাইভ– বিভিন্ন জনপ্রিয় মুভিতে অভিনয় করেছেন তিনি। মৃত্যুর পর পরই এই সমস্ত ছবির বিভিন্ন অংশ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভরে যায়। একইসঙ্গে আত্মঘাতী সুশান্তের মৃতদেহের ছবি ও অনেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। আর তা রুখতেই মহারাষ্ট্র পুলিশ সাইবার সেল নতুন ব্যবস্থা নিতে চলেছে।

তরুণ সুশান্তের মৃতদেহ বিছানার ওপর শুয়ে থাকা কাল t-shirt ধূসর কালারের বক্সার পরা ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় দ্রুত হারে ছড়িয়ে পড়ে। এমনকি তার গলায় ফাঁসের দাগ ও স্পষ্টভাবে বোঝা যায়। এরপরই মহারাষ্ট্র পুলিশ একগুচ্ছ টুইটার প্রকাশ করে এবং এই ছবি ভাইরাল করার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা জারি করে। মারাঠা পুলিশ এই ছবি প্রবণতাকে বিরক্তিকর ও নিম্ন রুচির বলে উল্লেখ করে।এমনকি আরো জানানো হয় যে সমস্ত নেটিজেনরা এ ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে তারা যেন দ্রুততার ডিলিট করে দেয়।তা না হলে পুলিশ আইনি ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবে তাদের বিরুদ্ধে।

এমনিতেই অনেকের যারা সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি ছড়িয়েছে তাদের বিরুদ্ধে ক্ষোভ সৃষ্টি। অনেকে অভিযোগ করে এ দেহ ছড়ানো ব্যাপারে পুলিশ আইনি ব্যবস্থা নিক। অভিনেত্রী উর্মিলা সুশান্ত ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করার ব্যাপারে নিজের ক্ষোভ উগরে দেন। তিনি বলেন,একজন তরুণ অভিনেতার এভাবে চলে যাওয়াটা খুবই দুঃখজনক কিন্তু তার ছবি এইভাবে ভাইরাল করা যা যুবসমাজের মনে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে।

উল্লেখ্য, গতকাল সুশান্ত মুম্বাইয়ের বান্দ্রায় নিজের ফ্ল্যাটে আত্মঘাতী হন। সে সময় তার বাড়িতে আরো চারজন ছিলেন। তারা জানিয়েছে ঘুরতে যাওয়ার নাম করে বেডরুমে গিয়ে সিলিং ফ্যানে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হয়। তার আসল বাড়ি বিহারে। পাটনা থেকে তার আত্মীয়-স্বজনরা মুম্বাইয়ে পৌঁছেছেন। তরুণ অভিনেতা সুশান্তের এই মর্মান্তিক মৃত্যুতে শোকার্ত বলিউড সহ সারা দেশ।

WhatsApp chat
error: