মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুরে শুরু হল এম.এ.হান্নান সম্পাদিত ‘নারীশক্তি’-র পথচলা

জহির উল ইসলাম ও মহ: মুস্তফা শেখ, প্রতিফলক :করোনা আবহে বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ ও প্রাবন্ধিক এম এ হান্নান এবং নয়ীমা আনসারী সম্পাদিত নতুন ধারার পত্রিকা মাসিক ‘নারীশক্তি’ আত্মপ্রকাশ করল। ১৫ নভেম্বর’২০২০ রবিবার জঙ্গীপুরের বাহুরা বটতলায় এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে পত্রিকাটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ‘রঙধনু’ সম্পাদক জয়নূল আবেদীন। জঙ্গীপুর হাই স্কুলের সহকারী শিক্ষক জনাব মনিরুজ্জামান(বিটু) এই অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। কবি মহঃ গোফুর সেখ, গল্পকার এস এম নিজামুদ্দিন, শিল্পপতি ও সমাজসেবী গোলাম মোস্তফাসহ স্থানীয় বহু সাহিত্যমোদী, শিক্ষক-শিক্ষানুরাগী ব্যক্তি এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
মোসফিকুর রহমানের কণ্ঠে পবিত্র কুরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা হয়। কবি নজরুলের ভাষায় ‘সেদিন সুদূর নয়—/যেদিন ধরণী পুরুষের সাথে গাহিবে নারীরও জয়।’ এই প্রত্যাশা নিয়ে পত্রিকা সম্পাদক এম এ হান্নান তাঁর বক্তব্যে ‘নারীশক্তি’-র লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করেন। নজরুলের ‘নারী’ কবিতা আবৃত্তি করেন হাবিবুর রহমান। পত্রিকাটি উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি জয়নূল আবেদীন। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, ইসলাম নারীকে অধিকার দিয়েছে কিন্তু মুসলমানরা তা দেয় নি। আমরা ধর্মীয় বিধি বিধান পালনের মাধ্যমেই ইসলামকে সীমাবদ্ধ রেখেছি। অথচ নবীজী কবিতা চর্চাকেও উৎসাহ প্রদান করেছেন। আমরা অনেকেই তা জানিনা। সভাপতি তাঁর বক্তব্যে সংবাদপত্রের দায়িত্ব ও কর্তব্যের কথা তুলে ধরে বলেন, বর্তমানে অনেক কাগজই যথাযথ দায়িত্ব পালন করছে না। এ ব্যাপারে ‘নারীশক্তি’ ব্যতিক্রমী ভূমিকা পালন করবে বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন।
উল্লেখ্য এম এ হান্নানের সম্পাদনায় ইতিপূর্বে নব্বইয়ের দশকের শুরুতে (জানুয়ারি’১৯৯০) পাক্ষিক ‘নারী’ পত্রিকা প্রকাশিত হয়, যা তৎকালীন সময়ে সারা বাংলার সুশীল সমাজের মানুষদের কাছে যথেষ্ট সমাদৃতও হয়। মাঝে মাঝে অনিয়মিত হয়ে পড়লেও দীর্ঘ ১৪ বছর ধরে পত্রিকাটি বেঁচে ছিল। নানান সংকটে শেষ পর্যন্ত এটি বন্ধ হয়ে যায়। অবশেষে আবার দেড় দশক পর অতীতের ঐতিহ্য অক্ষুণ্ন রেখে ‘নারীশক্তি’-র পথচলা শুরু হল। এই সংখ্যায় যারা লিখেছেন তাঁদের মধ্যে অন্যতম হলেন, প্রাক্তন সাংসদ মইনুল হাসান, শমীক লাহিড়ী, নয়নতারা সহগল, মতিউর রহমান, সত্য দত্ত, মহঃ হেলালউদ্দিন, মুখতার হোসেন মণ্ডল, সঞ্চিতা চট্টোপাধ্যায”় “প্রমুখ। চারিদিকে সামাজিক অবক্ষয়ের এই দুঃসময়ে এমন একটি অভিনব পত্রিকার আত্মপ্রকাশকে অনুষ্ঠানে উপস্থিত দর্শক-শ্রোতা সবাই স্বাগত জানান। সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন হাসনাত জাহান।

WhatsApp chat
error: