নাগার্নো কারবাখের রাজধানী স্টেপানাকার্টের পার্শ্ববর্তী শুশা সিটির নিয়ন্ত্রণ নিল আজারবাইজান, এবার টার্গেট রাজধানী

প্রতিফলক নিউজ ব্যুরো: ককেশাস অঞ্চলের দুটি দেশ আজারবাইজান এবং আর্মেনিয়া যুদ্ধে জড়িয়েছে সম্প্রতি। ‘নাগার্নো কারাবাখ’ নামে এক ভূখণ্ড নিয়েই সমস্যার সূত্রপাত। নাগার্নো কারাবাখ আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত আজারবাইজানের ভূখন্ড হলেও সেটি ১৯৯২ সাল থেকে নিয়ন্ত্রন করে আসছে জাতিগত আর্মেনীয়রা।

এবার হারানো ভূখণ্ড দখল মুক্ত করতে ‘নাগার্নো কারাবাখ’ এ সামরিক অভিযান শুরু করেছে আজারবাইজান। ফলে কার্যত আর্মেনিয়ার সঙ্গে সম্মুখ সমরে লিপ্ত আজহারী সেনাবাহিনী । মাত্র এক মাসের যুদ্ধে নাগার্নো কারবাখের প্রায় ৩০ শতাংশ ভূমি দখল মুক্ত করেছে আজারবাইজান ।আজ রাতে নাগার্নো কারাবাখ এর রাজধানী স্টেপানাকার্ট বা খানকান্দির পাশের শহর কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ শুশা সিটির দখল নিয়েছে আজারী বাহিনী।

শুশা সিটি থেকে রাজধানী স্টেপানাকার্টের দূরত্ব মাত্র ১০ কিলোমিটার। আজারি সেনাবাহিনীর সামনে এবার টার্গেট রাজধানী খানকান্দি। রাজধানী স্টেপানাকার্ট বা খানকান্দির পতন হলেই কারবাখ যুদ্ধ পরিসমাপ্তি দিকেই এগোবে বলে ধারণা করছেন আন্তর্জাতিক বিশ্লেষকরা ।

মুসলিম অধ্যুষিত আজারবাইজান কে প্রত্যক্ষ সমর্থন দিচ্ছে তুরস্ক। ইহুদিবাদী ইসরাইল ও এবার আজারবাইজানের পক্ষে। অপরদিকে খ্রীষ্টান অধ্যুষিত আর্মেনিয়ার পক্ষে পরোক্ষে সহযোগিতা করছে বলে ধারণা করা হচ্ছে ফ্রান্স ও রাশিয়া।দুই দেশের মধ্যে বেশ কয়েকবার যুদ্ধবিরতি চুক্তি হলেও তা কার্যকর হয়নি।

WhatsApp chat
error: