৬ষ্ঠ বার্ষিক কল্যাণী বই উৎসবে সম্মাননা প্রদান করা হল কবি ফারুক আহমেদ সহ ৪০ জন কবিকে

নিজস্ব সংবাদদাতা, প্রতিফলক ডেস্কঃ: কল্যাণী পৌরসভার ষষ্ঠ বর্ষের প্রয়াস কল্যাণী বই উৎসব ২০২০-২০২১ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন কথা-সাহিত্যিক তিলোত্তমা মজুমদার। সহযোগিতায় কল্যাণী পাবলিক লাইব্রেরী। এবছর কল্যাণী বই উৎসব মেতেছে নানান সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে। বই উৎসব শুরু হয় ২৭ ডিসেম্বর চলবে ৩ জানুয়ারি পর্যন্ত। লিটল ম্যাগাজিন প্যাভিলিয়নে আয়োজিত হয়েছে কবি সম্মেলন, গল্পপাঠ, আবৃত্তি, শ্রুতিনাটক, আলোচনা সভা ইত্যাদি নানাবিধ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। চারদিন ব্যাপী অনুষ্ঠান মঞ্চের দ্বারোদঘাটন করেন উৎসব কমিটির যুগ্ম সম্পাদক সুব্রত চক্রবর্তী এই উদ্যোগে সহযোগী হওয়ার জন্য “কল্যাণী বাতিঘর” সাহিত্য সংস্থাকে ভূয়সী প্রশংসা করেন। দুদিনে প্রায় ৪০ জন কবি কবিতা পড়েন। ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করেন বিশিষ্ট শিক্ষক ও সাহিত্যপ্রেমী বিমল কুমার দাস বলেন, “করোনা সংকট মানুষের সৃষ্টিকে থামিয়ে রাখতে পারে নি। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা কবি সাহিত্যিকদের নিয়ে এ ধরণের অনুষ্ঠান সুস্থ সংস্কৃতি মনস্কতার পরিচায়ক।” বই উৎসব কমিটি এবছর মেলার থীম ও উৎসর্গ করেছেন সদ্য প্রয়াত প্রখ্যাত অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে।

এদিন কবিতা পাঠ করেন কবি ও উদার আকাশ পত্রিকার সম্পাদক ফারুক আহমেদ। প্রত্যেক কবিকে সম্মাননা প্রদান করা হয় বই উৎসব কমিটির পক্ষ থেকে। ফারুক আহমেদ-এর হাতে স্মারক তুলে দিলেন বই উৎসব কমিটির লিটল ম্যাগাজিন উপসমিতির আহ্বায়ক অসিত মণ্ডল, নবনীতা মণ্ডল ও সীমা রায়। উত্তরীয়, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে উৎসর্গ করা সুন্দর স্মারক দিয়ে কবিকে সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে। এদিন কবি ফারুক আহমেদ স্মরণ করেন প্রয়াত হয়েছেন কল্যাণী বই উৎসব কমিটির লিটল ম্যাগাজিনের প্রাণপুরুষ মুকুন্দ লাল রায়কে। তিনি অন্যতম ও গুরুত্বপূর্ণ সক্রিয় সদস্য ছিলেন বই উৎসব কমিটির।

কানাইলাল চক্রবর্তী, সুখেন্দু বিকাশ মৈত্র, নিলয় নন্দী, সঞ্জিত দাস, অশোক চক্রবর্তী, চন্দন সাহা, দেবাশিস ঘোষ, শান্তনু দাস, রিমলী বিশ্বাস, তমালি দত্ত, অয়ন চৌধুরী, হরিৎ বন্দোপাধ্যায়, বিমল কুমার দাস, সুদর্শন মণ্ডল, চৈতালি বসু, অসিত মণ্ডল, কুশল মৈত্র, সৌমী আচার্য্য প্রমুখ কবিরা কবিতা পাঠ করেন। কবিতায় উঠে আসে প্রেম, প্রকৃতি, সমসময়। উঠে আসে অতিমারী শাসিত পৃথিবী।

আগামী দু দিনে এই লিটল প্যাভিলিয়নে আলোচনা সভায় অংশগ্রহণ করবেন সাহিত্যিক তমাল বন্দোপাধ্যায় ও মনস্তত্ববিদ তটিনী দত্ত, কবিতা কোলাজ উপস্থাপিত করবেন “কল্যাণী বাতিঘর “ও “অভিব্যক্তির “বাচিক শিল্পীরা এবং পথ নাটিকা মঞ্চস্থ করবেন” সৌপ্তিক নাট্য সংস্থা।
বই উৎসবের লিটল ম্যাগাজিন উপসমিতির আহ্বায়ক অসিত মণ্ডল বলেন,”কল্যাণী বই উৎসব সুস্থ সংস্কৃতির পক্ষে। দেশজুড়ে মাথা চাড়া দিয়ে ওঠা অসন্তোষের আবহ, ধর্মীয় উন্মাদনা, সাম্প্রদায়িকতা, বিভাজন—এসবের বিরুদ্ধে মনুষ্যত্বের জয় সুনিশ্চিত করতে সাহিত্য- সংস্কৃতির সাধনাই একমাত্র পথ। আগামী দিনে কল্যাণী বই উৎসব আরও বেশী সংখ্যক মানুষকে এধরণের অনুষ্ঠানে সামিল করতে সচেষ্ট হবে।”

WhatsApp chat
error: